Dedicated to the socio-economic advancement of the poor and disadvantaged communities

মঙ্গলবার রাঙ্গামাটি সাপছড়ি ইউনিয়ন কমপ্লেক্সে। পল্লী কর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) অর্থায়নে বাস্তবায়নাধীন “সমৃদ্ধি কর্মসূচি”র আওতায় সিআইপিডি এর উদ্যোগে চক্ষু ও সাধাররণ রোগ বিষয়ে একটি  হলেথ ক্যাম্পরে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত ক্যাম্পে ৯৪ জন চক্ষু রোগি, ৯৩ জন নারী-পুরুষকে সাধাররণ রোগের চিকিৎসা ও বিনামুল্যে ঔষধ প্রদান এবং ১১ জনের বহুমুত্র রোগ নির্ণয় করা হয়। এছাড়া উন্মেষ এর উদ্যোগে বিনামূল্যে ৮৩ জন নারী-পুরুষের রক্ত গ্রুপ নির্ণয় করা হয়। এইদিন সকাল থেকে গ্রামবাসীরা চিকিৎসার জন্য সাপছড়ি ইউনিয়ন কমপ্লেক্সে জড়ো হয়।

প্রথমে তাদের রোগ অনুযায়ী রেজিষ্ট্রেশন করা হয় ও সারিবদ্ধভাবে সেবা প্রদান করা হয়। এই ক্যাম্পে লায়নস ক্লাব, চট্টগ্রাম এর তিনজন ডাক্তার চক্ষু চিকিৎসা ও রাঙ্গামাটি সদর হাসপাতালের ১ জন বিশেযজ্ঞ ডাক্তার চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন। রাঙ্গামাটি সদর উপজেলা কর্মকর্তা জনাব কামাল হোসেন এই ক্যাম্প পরিদর্শন করেন।

সিআইপিডি এর নির্বাহী কর্মকর্তা জনলাল চাকমা, সাপছড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শিমুল বিকাশ চাকমা, ইউপি সদস্য নিরু চাকমা, দয়াল কুমার চাকমা ও ইউপি সেক্রেটারী সুমতি রন্জন চাকমা এই ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে গত ০৪/০৬/২০১৫ তারিখেও  চক্ষু, মা ও শিশু রোগের একটি হেলথ ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়, ১১০ জন চক্ষু রোগি, ৫৮ জন মা, ১০৭ টি শিশু ও ১১১ জন নারী-পুরুষকে  সাধাররণ রোগের চিকিৎসা ও বিনামুল্যে ঔষধ প্রদান করা হয়।

মঙ্গলবার রাঙ্গামাটি সাপছড়ি ইউনিয়ন কমপ্লেক্সে। পল্লী কর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) অর্থায়নে বাস্তবায়নাধীন “সমৃদ্ধি কর্মসূচি”র আওতায় সিআইপিডি এর উদ্যোগে চক্ষু ও সাধাররণ রোগ বিষয়ে একটি  হলেথ ক্যাম্পরে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত ক্যাম্পে ৯৪ জন চক্ষু রোগি, ৯৩ জন নারী-পুরুষকে সাধাররণ রোগের চিকিৎসা ও বিনামুল্যে ঔষধ প্রদান এবং ১১ জনের বহুমুত্র রোগ নির্ণয় করা হয়। এছাড়া উন্মেষ এর উদ্যোগে বিনামূল্যে ৮৩ জন নারী-পুরুষের রক্ত গ্রুপ নির্ণয় করা হয়। এইদিন সকাল থেকে গ্রামবাসীরা চিকিৎসার জন্য সাপছড়ি ইউনিয়ন কমপ্লেক্সে জড়ো হয়।

প্রথমে তাদের রোগ অনুযায়ী রেজিষ্ট্রেশন করা হয় ও সারিবদ্ধভাবে সেবা প্রদান করা হয়। এই ক্যাম্পে লায়নস ক্লাব, চট্টগ্রাম এর তিনজন ডাক্তার চক্ষু চিকিৎসা ও রাঙ্গামাটি সদর হাসপাতালের ১ জন বিশেযজ্ঞ ডাক্তার চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন। রাঙ্গামাটি সদর উপজেলা কর্মকর্তা জনাব কামাল হোসেন এই ক্যাম্প পরিদর্শন করেন।

সিআইপিডি এর নির্বাহী কর্মকর্তা জনলাল চাকমা, সাপছড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শিমুল বিকাশ চাকমা, ইউপি সদস্য নিরু চাকমা, দয়াল কুমার চাকমা ও ইউপি সেক্রেটারী সুমতি রন্জন চাকমা এই ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে গত ০৪/০৬/২০১৫ তারিখেও  চক্ষু, মা ও শিশু রোগের একটি হেলথ ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়, ১১০ জন চক্ষু রোগি, ৫৮ জন মা, ১০৭ টি শিশু ও ১১১ জন নারী-পুরুষকে  সাধাররণ রোগের চিকিৎসা ও বিনামুল্যে ঔষধ প্রদান করা হয়।

- See more at: http://www.chttimes24.com/archives/16935#sthash.xjxnAoH1.dpuf

মঙ্গলবার রাঙ্গামাটি সাপছড়ি ইউনিয়ন কমপ্লেক্সে। পল্লী কর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) অর্থায়নে বাস্তবায়নাধীন “সমৃদ্ধি কর্মসূচি”র আওতায় সিআইপিডি এর উদ্যোগে চক্ষু ও সাধাররণ রোগ বিষয়ে একটি  হলেথ ক্যাম্পরে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত ক্যাম্পে ৯৪ জন চক্ষু রোগি, ৯৩ জন নারী-পুরুষকে সাধাররণ রোগের চিকিৎসা ও বিনামুল্যে ঔষধ প্রদান এবং ১১ জনের বহুমুত্র রোগ নির্ণয় করা হয়। এছাড়া উন্মেষ এর উদ্যোগে বিনামূল্যে ৮৩ জন নারী-পুরুষের রক্ত গ্রুপ নির্ণয় করা হয়। এইদিন সকাল থেকে গ্রামবাসীরা চিকিৎসার জন্য সাপছড়ি ইউনিয়ন কমপ্লেক্সে জড়ো হয়।

প্রথমে তাদের রোগ অনুযায়ী রেজিষ্ট্রেশন করা হয় ও সারিবদ্ধভাবে সেবা প্রদান করা হয়। এই ক্যাম্পে লায়নস ক্লাব, চট্টগ্রাম এর তিনজন ডাক্তার চক্ষু চিকিৎসা ও রাঙ্গামাটি সদর হাসপাতালের ১ জন বিশেযজ্ঞ ডাক্তার চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন। রাঙ্গামাটি সদর উপজেলা কর্মকর্তা জনাব কামাল হোসেন এই ক্যাম্প পরিদর্শন করেন।

সিআইপিডি এর নির্বাহী কর্মকর্তা জনলাল চাকমা, সাপছড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শিমুল বিকাশ চাকমা, ইউপি সদস্য নিরু চাকমা, দয়াল কুমার চাকমা ও ইউপি সেক্রেটারী সুমতি রন্জন চাকমা এই ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে গত ০৪/০৬/২০১৫ তারিখেও  চক্ষু, মা ও শিশু রোগের একটি হেলথ ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়, ১১০ জন চক্ষু রোগি, ৫৮ জন মা, ১০৭ টি শিশু ও ১১১ জন নারী-পুরুষকে  সাধাররণ রোগের চিকিৎসা ও বিনামুল্যে ঔষধ প্রদান করা হয়।

- See more at: http://www.chttimes24.com/archives/16935#sthash.xjxnAoH1.dpuf

রাঙ্গামাটি জেলার নানিয়াচরে উপজেলার বগাছড়ি গ্রামে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের সিআইপিডি’র পক্ষ থেকে ত্রাণ সহায়তা প্রদান করেছেন গত ২৩ ডিসেম্বর ২০১৪ ইং রোজ সোমবার।

Donor: World Bank

The CHT, southeastern part of Bangladesh, comprises of a total area of 5,093 sq. miles (13,189 sq. km) completely different in administrative system, physical features, agricultural practices, soil conditions from the rest of the country with hills, mountains and beautiful landscapes. The region is also unique socio-economically, ethnically and culturally from the mainstream Bengalis with 11 mongoloid indigenous peoples (Chakma, Marma, Tripura, Mro, Bawm, Pankhua, Khyang, Khumi, Chak, Lushai and Tanchangya). The government, however, generally prefers to call them as tribal people. Of course, government documents identify them as hill people, indigenous hill people and indigenous people (IP).     

Date: June 14 & 18, 2012

Venue: Bandukbhanga High School and Junior High School, Jibtali

Orgnized by : Bandukbhanga and Jibtali UnFC

 

Community Empowerment & Economic Development Programme is running since 2004. In continuation of project activities trough PDC/ PNDG it is realized that different experience and knowledge of different community organizations (PDC/PNDG) should be shared among each other for future development.

Rangamati Map

Khagrachari Map

Bandarban Map

Go to top